শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০, ০৭:৪০ অপরাহ্ন

করোনার গল্প

করোনার গল্প

 “আব্দুল্লাহ আল মারুফ”

জলিল চাচা একজন খেটে খাওয়া মানুষ, উনার একটি গরু আছে। উনি প্রতিদিন গরুকে ঘাস খাওয়াতে মাঠে নিয়ে যান। হঠাৎ একদিন কিভাবে জলিল চাচা করোনা আক্রান্ত হয়ে গেলেন উনি নিজেও জানেন না। চাচা জানেন উনার সামান্য একটু জ্বর আর কিছুনা। চাচা নিত্যদিনের মত গরু নিয়ে মাঠে গেলেন আর গরুকে খুঁটির সাথে বেধে বাড়ি চলে আসলেন। বিকেলে শরীর টা খারাপ লাগছে, তাই পাশের বাড়ীর মকবুল চাচাকে বললেন ,ভাই আপনার গরু আনার সময় আমার টাও একটু নিয়ে আসবেন। মকবুল চাচা গরুটা নিয়েও আসলেন। কিন্তু ঐ খুঁটির কথা কি মনে আছে? জলিল চাচা খুঁটির মধ্যে যে করোনা রেখে এসেছিলেন ,মকবুল চাচাও সাথে করে এইটা নিয়ে আসলেন…. “বি:দ্র : দুটি নামই কাল্পনিক”

এইটাই হচ্ছে আমাদের করোনা পরিস্থিতি ,আমরা আসলে লকডাউন , স্যোসাল ডিসটেন্স কিছুই বুঝিনা আমরা বুঝি এলাকার সামনের রাস্তায় বাশ দিয়ে লকডাউন করে ভেতরে গ্রামের সবাই মিলে লুডু খেলা যায়।

আমরা আসলে কিছুই বুঝিনা,আমরা বুঝি দোকান খোলা থাকলে সমস্যা ,শাটার বন্দ রেখে ভেতর থেকে পণ্য কেনা বেচা করা যায়।

আমরা আসলে কিছুই বুঝিনা , আমরা বুঝি করোনা হলে পুলিশ এসে হাসপাতালে নিয়ে যাবে সেখানে একা থাকতে হবে, তাই জর-কাশি কাউকে বলতে নেই।

আমরা আসলে কিছুই বুঝিনা,আমরা বুঝি মাছ বাজারে ,তরকারী বাজারে কিংবা টিসিবির লাইনে দাড়ালে করোনা হবে না। কারন যদি পেয়াজের দাম বেড়ে যায় তাহলে পিয়াজ কিনতে পারবনা ,আর পেয়াজ ছাড়া জিবনে চলবেনা।

আমরা আসলে এত কিছু বুঝিনা আমরা বুঝি, যেখানে ৫০০০ হাজার মানুষ কাজ করে একসাথে, সেইটা করা যাবে কিন্তু ১০০ জন মানুষ মসজিদে যাবে ১০ মিনিটের জন্য সেটা করা যাবেনা।

আমরা আসলে এত কিছু বুঝিনা আমরা বুঝি বড়লোকের বড় লোক হওয়া চাই,হাজার কোটি টাকা প্রনোদনা দিয়েও গার্মেন্টস খোলা রাখতে চাই, কিন্তু লক্ষ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা উদ্যোক্তাদের প্রনোদনা না দিয়ে তাদের প্রতিষ্টান বন্দ রাখতে চাই।

আমরা আসলে এত কিছু বুঝিনা, আমরা বুঝি দুর্যোগে আসা ত্রান কিভাবে চুরি করা যায়।

আসলে আমরা সব বুঝি ,সব দেখি কিন্তু কিছুই বলতে চাইনা,কারন আমরা সব বুঝি সব জানি কিন্তু মৃত্যুর কথা মনে করিনা , কারন আমরা মৃত্যঞ্জয়ী , আমরা কালজয়ী কেননা আমাদের যে অনেক মজবুত ইতিহাস…


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Bditfactory.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ