বৃহস্পতিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২০, ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন

ছিনতাই’ করা হয়েছে মেসির সপ্তম ব্যালন ডি অর

ছিনতাই’ করা হয়েছে মেসির সপ্তম ব্যালন ডি অর

সিলেট মিডিয়া ডেস্ক: ১৯৫৬ সাল থেকে প্রতিবছর বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার দিয়ে আসছে ফরাসি নিউজ ম্যাগাজিন ‘ফ্রান্স ফুটবল’। এটিকে ধরা হয় যেকোনো খেলোয়াড়ের জন্য অন্যতম সেরা ব্যক্তিগত অর্জন। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে মাঝে তিন মাসের মতো ফুটবলে বিরতি থাকায়, প্রায় ৬৪ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এ পুরস্কার দেয়া হবে না বলে জানিয়েছে ফ্রান্স ফুটবল।

হুট করে নেয়া এ সিদ্ধান্তটিকে লিওনেল মেসিকে ব্যালন ডি অর জিততে না দেয়ার পরিকল্পনাই মনে করছে ইংল্যান্ডের শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যম ডেইলি সান। এ বিষয়ে করা এক প্রতিবেদনে তারা পরিসংখ্যানের মাধ্যমে প্রমাণ করতে চেয়েছে যে, মূলত মেসির সপ্তম ব্যালন ডি অর পুরস্কারটি ছিনতাই করা হয়েছে পুরস্কারটি না দেয়ার সিদ্ধান্তের মাধ্যমে।

এক্ষেত্রে দ্য সান সাহায্য নিয়েছে ফুটবলভিত্তিক ওয়েবসাইট ‘হুস্কোরডডটকম’ এর মৌসুমভিত্তিক প্লেয়ার রেটিংয়ের। যেখানে সবার ওপরেই রয়েছেন লিওনেল মেসি। তাই দ্য সানের দাবি, এবারের ব্যালন ডি অরটি পেতেন বার্সেলোনার এ আর্জেন্টাইন জাদুকরই। শুধু তাই নয়, এই প্লেয়ার রেটিংয়ের ভিত্তিতে সেরা তিনেও জায়গা হয়নি মেসির চির প্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসির।

দ্য সানের মতে চলতি মৌসুমের শীর্ষ পাঁচ ফুটবলার

লিওনেল মেসি (৮.৭১ রেটিং): চলতি মৌসুমের লা লিগায় একের পর এক রেকর্ড গড়েছেন মেসি। জিতেছেন রেকর্ড সপ্তমবারের মতো সর্বোচ্চ গোলদাতার পুরস্কার পিচিচি ট্রফি। তার দল বার্সেলোনা শিরোপা হাতছাড়া করলেও, ব্যক্তিগত সাফল্যে ভাস্বর ছিলেন মেসি। পুরো লিগে ২৫ গোলের পাশাপাশি করেছেন রেকর্ড ২১টি এসিস্ট। যা তাকে এনে দিয়েছে ইউরোপের সেরা প্লেয়ার রেটিং।

কাইলিয়ান এমবাপে (৮.১৪ রেটিং): করোনাভাইরাসের কারণে বেশ কিছু ম্যাচ বাকি থাকতেই বাতিল করে দেয়া হয়েছে ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ান। চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হয়েছে টেবিল টপার প্যারিস সেইন্ট জার্মেইকে। তাদের শীর্ষে থাকার পেছনে বড় অবদান ছিল ফ্রেঞ্চ তারকা কাইলিয়ান এমবাপের। মাত্র ২০ ম্যাচ খেলেই ২৫টি গোলে অবদান রেখেছিলেন তিনি।

রবার্ট লেওয়ানডোস্কি (৮.১৩ রেটিং): চলতি মৌসুমের ব্যালন ডি অর জেতার ক্ষেত্রে অনেকেই সবার চেয়ে এগিয়ে রেখেছিলেন বায়ার্ন মিউনিখের তারকা ফুটবলার রবার্ট লেওয়ানডোস্কিকে। তবে রেটিং বিবেচনায় তিনি রয়েছেন তিন নম্বরে। এবারের মৌসুমে মাত্র ৩১ ম্যাচে ৩৪ গোল করেছেন তিনি। আগে কখনও ব্যালন জেতেননি লেওয়ানডোস্কি। এবারের মতো সুবর্ণ সুযোগ হয়তো আর সামনে পাবেনও না তিনি।

৪. ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (৭.৯১ রেটিং): রেটিং বিবেচনায় লিওনেল মেসি শীর্ষে অবস্থান করলেও, তার চির প্রতিদ্বন্দ্বী রোনালদো রয়েছেন চার নম্বরে। মেসির চেয়ে একটি কম ব্যালন থাকায়, তার ভক্তদের আশা ছিল এবার এই সংখ্যাটিকে সমান ছয়ে পরিণত করবেন রোনালদো। কিন্তু ৩০ ম্যাচে ৩০ গোল করেও রেটিং বিবেচনায় সেরা তিনে থাকতে পারেননি রোনালদো।

৫. কেভিন ডি ব্রুইন (৭.৮৮ রেটিং): এবারের ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে শিরোপা দৌড়ে বেশ পিছিয়ে ছিল ম্যানচেস্টার সিটি। তবে বরাবরের মতোই উজ্জ্বল পারফরম্যান্স দলের বেলজিয়ান মিডফিল্ডার কেভিন ডি ব্রুইনের। প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে এক মৌসুমে সর্বোচ্চ ২০ এসিস্টের রেকর্ড থেকে মাত্র একটি দূরে রয়েছেন তিনি।

এছাড়া শীর্ষে বিশের মধ্যে রয়েছেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া (৭.৭৫), দিমিত্রি পায়েট (৭.৭৩), জোসিপ ইলিসিচ (৭.৬৫), জ্যাডন সানচো (৭.৬৪), টিমো ওয়ের্নার (৭.৬০), আলেজান্দ্রো গোমেজ (৭.৫৮), লুইস অ্যালবার্টো (৭.৫৬), অ্যাডাম ট্রায়োর (৭.৫৩), ডুভান জাপাতা (৭.৫২), আলফনসো ডেভিস (৭.৫২), মার্কো রিউস (৭.৫০), রিকার্ডো পেরেইরা (৭.৫০), রিয়াদ মাহরেজ (৭.৫০), সার্জি জিনাব্রি (৭.৪৯), পাওলো দিবালা (৭.৪৮)।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Bditfactory.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ