বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০৯:০৩ পূর্বাহ্ন

শীর্ষ সংবাদ : :
৩ ডিসেম্বর : আজকের দিনে নবীগঞ্জে ৪ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ধর্ষক গ্রেফতার ছাতকে রাস্তার সংস্কার কাজে ঠিকাদার শংকর দাসের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ সাংবাদিক বদরুর রহমান বাবরকে হত্যার হুমকি, থানায় জিডি ফরেন এডুকেশন কন্সালটেন্স এসোসিয়েশন সিলেটের পিকনিক সম্পন্ন সিলেটের পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ প্রতিবন্ধি দু’ভাই ফিরে পেল তাদের বসতঘর সিলেটে ২য় পর্যায়ের করোনা সংক্রমন রোধে মহানগর যুবলীগের ফ্রি মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটেশন বিতরণ ‘হৃদয়ে বঙ্গবন্ধু’র মোড়ক উন্মোচন ও জসিম বুক হাউসের সাহিত্য সেবার যাত্রা শুরু কোটি কোটি ভ্যাকসিন সরবরাহের অপেক্ষায় চীন ২ ডিসেম্বর : আজকের দিনে সংগীত শিল্পী হিমাংশু বিশ্বাসকে গ্রীন ডিসএ্যাবল্ড ফাউন্ডেশন’র সংবর্ধনা শহীদ জিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তনের প্রতিবাদে সিলেটে স্বেচ্ছাসেবক দলের মিছিল সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের বিবৃতি প্রদান সিলেটে গ্যাস বিদ্যুৎ থাকছে না যেসব এলাকায় ২য় পর্যায়ের করোনা সংক্রমন রোধে মহানগর বিএনপির মাস্ক বিতরণ হাজী মাখন মিয়ার মৃত্যুতে খন্দকার মুক্তাদিরের শোক দেশে এইডসে এক বছরে ১৪১ মানুষের মৃত্যু, শনাক্ত ১৩৮৩ বিশ্ব এইডস দিবসে সিলেট সিভিল সার্জনের আলোচনা ও র‌্যালী জোনায়েদ সাকি ও নূরের নেতৃত্বে নতুন জোট আসছে সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের নতুন প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার ওয়াকার উজ জামান
হাকালুকি হাওরে পর্যটকদের ভিড়

হাকালুকি হাওরে পর্যটকদের ভিড়

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি: উপরে নীল আকাশ আর নিচে অথৈ স্বচ্ছ জলরাশি। জলের উপর বয়ে চলছে ছোট-বড় নৌকা। আর মাঝখানে দাঁড়িয়ে রয়েছে ওয়াচ টাওয়ার। নয়নাভিরাম দৃশ্যটি দেশের বৃহত্তম হাকালুকি হাওরের। এমন মনোমুগ্ধকর দৃশ্য মন কেড়ে নেয় ভ্রমণপিপাসু পর্যটকদের। তাই তো সেখানে ছুটে আসছেন পর্যটকরা।

হাওর ঘুরে দেখা গেছে, সিলেট ও মৌলভীবাজারের পাঁচটি উপজেলা নিয়ে বিস্তৃত হাকালুকি হাওর। হাওরের পশ্চিমে ভাটেরা পাহাড় এবং পূর্বে পাথারিয়া পাহাড় হাকালুকির সৌন্দর্য বাড়িয়ে দিয়েছে। ছোট-বড় ২৩৮টি বিল, ১০টি নদী নিয়ে প্রায় ১৮ হাজার হেক্টর আয়তনের এ হাওর বর্ষায় ২৩ হাজার হেক্টরের বিশাল জলাশয়ে পরিণত হয়।

মৌলভীবাজারে ২০০ আর সিলেটে রয়েছে ৩৮টি বিল। হাওরের ৮০ ভাগ মৌলভীবাজারে আর ২০ ভাগ সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ ও গোলাপগঞ্জ উপজেলায়। মৌলভীবাজারের বড়লেখা অংশে ৬০ ভাগ, কুলাউড়ায় ১২ ভাগ ও জুড়ি উপজেলায় রয়েছে ৮ ভাগ।

 

চলতি বর্ষায় হাকালুকি উত্তাল যৌবনের জয়গানে মুখরিত হয়। নীল আকাশের সাথে জলরাশির মিতালি বিমোহিত করে পর্যটকদের। বর্ষায় হাকালুকি হাওর দেখলে মনে হবে, এ যেন মহাসাগর। যেদিকে চোখ যায় শুধু জলের হাতছানি। চোখে পড়ে জলের বুকে দণ্ডায়মান হিজল, তমালসহ নানা জলজ বৃক্ষ। গাছের ডালে অচেনা পাখির আনাগোনা।

মৌসুমভেদে এখানে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে পরিযায়ী পাখি এসে আশ্রয় নেয়। যে কারণে হাকালুকি শুধু হাওরই নয়, পরিযায়ী পাখির বৃহৎ অভয়াশ্রমও। জীববৈচিত্র্য রক্ষায় তাই হাকালুকি হাওরের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। বিশাল এ হাওর ঘিরে স্থানীয় লাখো মানুষের স্বপ্ন ও জীবিকা।

শুক্রবার হাকালুকি হাওরে থাকে পর্যটকদের উপচেপড়া ভিড়। হাওরের জলে ক্লান্ত সূর্যের অবগাহন দেখতে অনেকে সন্ধ্যা নামার আগে ছুটে যান। বিস্তৃত হাওরের জলে গোধূলির সূর্য ডোবার অপরূপ দৃশ্য যে কাউকে নিয়ে যায় অন্য জগতে। ঘুড়তে যাওয়া একটি সংগঠনের সাথে কথা হয় তারা এই হাওড়কে মিনি কক্সবাজার উপাধি দিচ্ছেন। এখানে একবার ঘুরে যাওয়ার ও কথা বলেছেন অনেকে।  এখানে কয়েক ঘণ্টার জন্য ছোট নৌকা ভাড়া ৮০০ টাকা এবং বড় নৌকা ১২০০ টাকা। এক্ষেত্রে দরদাম করে নেওয়া ভালো।





© All rights reserved © 2018 dailysylhetmedia
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ