রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৫৬ পূর্বাহ্ন

বেনাপোল বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আসছে না

বেনাপোল বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আসছে না

সিলেট মিডিয়া ডেস্কঃ যশোরের বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে গতকাল মঙ্গলবার থেকে কোনো পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে না। ভারতীয় কাস্টমস (শুল্ক) বিভাগের রপ্তানির অনুমতি পাওয়া আগের কী পরিমাণ পেঁয়াজ পেট্রাপোলে অপেক্ষমাণ রয়েছে তা জানার জন্য বেনাপোল কাস্টমস হাউসের কার্গো শাখার একটি দল আজ বুধবার দুপুরে ভারতের পেট্রাপোল শুল্ক দপ্তরে যাচ্ছে।

এদিকে পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ায় যশোরের বাজারে লাগাম ছাড়া বেড়েছে পেঁয়াজের দাম। এক লাফে কেজিতে ৩০ থেকে ৫০ টাকা পর্যন্ত বেড়ে গেছে। বাজারে গিয়ে মানুষের নাভিশ্বাস উঠছে। খুচরা বাজারে এক কেজি পেঁয়াজ কিনতে গুনতে হচ্ছে ৯০ থেকে ১০০ টাকা। এক সপ্তাহ আগেও যা ছিল ৪০-৪৫ টাকা।

বেনাপোলের পেঁয়াজ আমদানিকারক ও ক্লিয়ারিং অ্যান্ড ফরোয়ার্ডিং (সিঅ্যান্ডএফ) এজেন্ট রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘পেঁয়াজ রপ্তানির জন্য কাগজপত্রের কাজ শেষ করে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় ভারতের পেট্রাপোল স্থলবন্দরে অন্তত ১৫টি ট্রাক দাঁড়িয়ে রয়েছে।

এ ছাড়া ভোমরা বন্দরে পেঁয়াজ বোঝাই আরও অন্তত ৮০টি ট্রাক দাঁড়িয়ে আছে। গত দুই দিনে ভারত সরকার কোনো পেঁয়াজ ছাড় দেয়নি। আজ ও আগামীকালের মধ্যে ওই পেঁয়াজ ছাড় দেওয়া হবে বলে আশা করছি। তবে বেশি দামেই ওই পেঁয়াজ কিনতে হবে।’

রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানির জন্য অন্তত এক লাখ মেট্রিক টন পেঁয়াজের এলসি খোলা রয়েছে।’

আমদানির অপেক্ষায় পেট্রাপোলে কি পরিমাণ পেঁয়াজ অপেক্ষমাণ রয়েছে-এমন প্রশ্নের উত্তরে বেনাপোল কাস্টমস হাউসের সহকারী কমিশনার কল্যাণ মিত্র চাকমা বলেন, ‘গতকাল মঙ্গলবার থেকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে কোনো পেঁয়াজ ভারত থেকে আমদানি হয়নি। কাগজপত্রের কাজ শেষ করে পাইপ লাইনে কী পরিমাণ পেঁয়াজ রয়েছে তা আমাদের জানা নেই। ওই তথ্য জানার জন্য আজ বুধবার দুপুরে কাস্টমের কার্গো শাখার একটি দলকে পেট্রাপোল কাস্টম বিভাগে পাঠানো হচ্ছে। এরপর বিষয়টি বলা যাবে।’


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2017 Bditfactory.com
পোর্টাল বাস্তবায়নে : বিডি আইটি ফ্যাক্টরী লিঃ